1. dssangbad1@gmail.com : dss :
  2. admin@news.eswadhinsangbad.com : admin :
সেনানিবাস থেকে বীরাঙ্গনা হওয়া যায় না: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী - দৈনিক স্বাধীন সংবাদ
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
ডেমরায় আবাসিক হোটেল থেকে অসামাজিক কাজের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১১ গণতন্ত্র ও মানবাধিকার ইস্যু সুশীল সমাজের সঙ্গে সরকারকে যুক্ত থাকার আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম নিয়ন্ত্রণ সরকারের উদ্দেশ্য নয় : আইনমন্ত্রী গলায় দড়ি দিলেন মা ছেলে-মেয়েকে বিষ খাইয়ে ঢাকা জেলার ধামরাই এলাকা হতে ৯৮০ গ্রাম হেরোইনসহ ০১ জন মাদক কারবারি’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪ আশুলিয়ায় চোর সন্দেহে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা,গ্রেফতার-২ মুরাদনগর উপজেলার ২নং আকুবপুর ইউনিয়নের উদ্যোগে আওয়ামী লীগের ২ নেতার স্মরণ সভা  বাকেরগঞ্জে মহান শহীদদিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষা শহীদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন লক্ষীপুর জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন সভাপতি জসিম সম্পাদক বিপ্লব অদ্বৈত মল্লবর্মণ সাহিত্য পুরস্কার প্রদানের মাধ্যমে শেষ হলো তিন দিনব্যাপী ২য় অদ্বৈত গ্রন্থমেলা ২০২৪

সেনানিবাস থেকে বীরাঙ্গনা হওয়া যায় না: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী

প্রথম নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : সোমবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১১৯ জন দেখেছে

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তিযোদ্ধা বলার বিরোধিতা করে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, তিনি (খালেদা) সেনানিবাসে থাকতে নিরাপদ বোধ করেন। স্বেচ্ছায় সেনানিবাসে থাকলে বীরাঙ্গনা বা মুক্তিযোদ্ধা হওয়া যায় না।

সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) রাজধানীর ফার্মগেটে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে আয়োজিত ‘বিজয় সুবর্ণ জয়ন্তী পতাকা কুচকাওয়াজ’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, পাকবাহিনীর হাতে নির্যাতিত আমাদের গর্বিত মা-বোনদের মুক্তিযোদ্ধারা চিনতে পেরেছেন। কিন্তু জিয়াউর রহমান বারবার খালেদা জিয়াকে চলে যেতে বলেন। মুক্তিযুদ্ধ করতে স্বামীর সঙ্গে সীমান্ত পাড়ি দিতে তিনি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেননি। তিনি সেনানিবাসে নিরাপদ বোধ করেন। স্বেচ্ছায় সেনানিবাসে থাকলে বীরাঙ্গনা বা মুক্তিযোদ্ধা হওয়া যায় না। তাকে মুক্তিযোদ্ধা আখ্যা দিয়ে মুক্তিযুদ্ধকে অপমান করা হয়েছে। মির্জা ফখরুল তারেক রহমানকে শিশু মুক্তিযোদ্ধা বলেছেন এবং ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় তারেক রহমান সরাসরি জড়িত ছিলেন।

বিশ্বে এখন উন্নয়নের রোল মডেল উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, বিএনপি শাসনামলে দেশ চারবার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। তারা আমাদের অসম্মান এনে দিয়েছে। জিয়াউর রহমান হাজার হাজার মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যা করেছেন। কোর্ট মার্শালের নামে অসংখ্য সেনা সদস্যকে ফাঁসি দেওয়া হয়েছে। তাদের লাশ পরিবারের কাছে ফেরত দেওয়া হয়নি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল তার বক্তব্যে ফার্মগেট ও মুক্তিযুদ্ধের কথা স্মরণ করিয়ে দেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধের জন্য সবকিছু সংগঠিত করেছিলেন। বাকিটা ছিল নিরস্ত্র বাঙালির সশস্ত্র সংগ্রামের জন্য।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ড. খন্দকার বজলুল হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহাবুব উদ্দিন আহমেদ বীর বিক্রম, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী বীর মুক্তিযোদ্ধা ড.নাসরীন আহমেদ প্রমুখ।

সংবাদ টি শেয়ার করে সহযোগীতা করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
Design & Developed by REHOST BD