1. dssangbad1@gmail.com : dss :
  2. admin@news.eswadhinsangbad.com : admin :
যুবলীগ নেতার মৎস্য খামারে হামলায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন - দৈনিক স্বাধীন সংবাদ
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:৫৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
ডেমরায় আবাসিক হোটেল থেকে অসামাজিক কাজের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১১ গণতন্ত্র ও মানবাধিকার ইস্যু সুশীল সমাজের সঙ্গে সরকারকে যুক্ত থাকার আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম নিয়ন্ত্রণ সরকারের উদ্দেশ্য নয় : আইনমন্ত্রী গলায় দড়ি দিলেন মা ছেলে-মেয়েকে বিষ খাইয়ে ঢাকা জেলার ধামরাই এলাকা হতে ৯৮০ গ্রাম হেরোইনসহ ০১ জন মাদক কারবারি’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪ আশুলিয়ায় চোর সন্দেহে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা,গ্রেফতার-২ মুরাদনগর উপজেলার ২নং আকুবপুর ইউনিয়নের উদ্যোগে আওয়ামী লীগের ২ নেতার স্মরণ সভা  বাকেরগঞ্জে মহান শহীদদিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষা শহীদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন লক্ষীপুর জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন সভাপতি জসিম সম্পাদক বিপ্লব অদ্বৈত মল্লবর্মণ সাহিত্য পুরস্কার প্রদানের মাধ্যমে শেষ হলো তিন দিনব্যাপী ২য় অদ্বৈত গ্রন্থমেলা ২০২৪

যুবলীগ নেতার মৎস্য খামারে হামলায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন

কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত : রবিবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ১৯৩ জন দেখেছে

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে যুবলীগ নেতার মৎস্য খামারে প্রতিপক্ষ হামলা চালিয়ে সবজি বাগান সহ ১০ লাখ টাকার ক্ষতি করেছে বলে জানা গেছে। শনিবার ও রোববার ২ দিন সদকী ইউনিয়নের গড়ের মাঠ ব্রীজ সংলগ্ন সুজন আলীর ভাই ভাই এন্টারপ্রাইজ মৎস্য খামারে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

ভুক্তভোগী জগন্নাথপুর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সুজন আলী জানান, তিনি প্রায় ২৭ বিঘা পরিত্যক্ত জমি বিভিন্ন জনের নিকট থেকে লিজ নিয়ে মাছের চাষ এবং পাড়ে সবজি বাগান করে ১৪ বছর উৎপাদনমুখী এই খামার পরিচালনা করছেন। ২০২২ সালে তিনি উৎপাদনমুখী খামারি হিসাবে সরকারিভাবে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন। তার এই খামারের মধ্যে নায়েব মুন্সির ২ বিঘা জমি রয়েছে। হটাৎ করেই নায়েব মুন্সি তাকে জমি ছেড়ে দিতে বললে তিনি সময় প্রার্থণা করেন। কিন্তু শনিবার থেকে রোববার পর্যন্ত নায়েব মুন্সি, রবিউল হোসেন, নুরে মন্ডল, মুন্তাজ, ইন্তাজ মন্ডল ও লালচাঁদ সহ ২০/২৫ জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার খামারের সবজি বাগান তছরুপ ও জাল দিয়ে মাছ মেরে নেয়। এসময় তিনি বাধা দিতে আসলে ধারালো অস্ত্রের মুখে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। এই ঘটনায় তার প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে উল্লেখ করেন। সুবিচার পাবার আশায় তিনি থানা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট অভিযোগ দিয়েছেন। কিন্তু প্রতিপক্ষ প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে খামারে একের ওর এক হামলা চালিয়ে পুকুরের পার কেটে ধান লাগাচ্ছে। তিলে তিলে গড়া তার মৎস্য খামারে প্রায় ৫০ লাখ টাকার মাছ রয়েছে বলে জানান তিনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিতান কুমার মন্ডল জানান, অভিযোগ পেয়েছি। ইতিমধ্যে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য থানায় নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মহসীন হোসাইন জানান, অভিযোগ পেয়েছি। ইতিমধ্যে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

সংবাদ টি শেয়ার করে সহযোগীতা করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
Design & Developed by REHOST BD