1. dssangbad1@gmail.com : dss :
  2. admin@news.eswadhinsangbad.com : admin :
দুই মাসে রেকর্ড সোয়া ২ লক্ষ কর্মী বিদেশে গেছেন - দৈনিক স্বাধীন সংবাদ
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:০৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
ডেমরায় আবাসিক হোটেল থেকে অসামাজিক কাজের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১১ গণতন্ত্র ও মানবাধিকার ইস্যু সুশীল সমাজের সঙ্গে সরকারকে যুক্ত থাকার আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম নিয়ন্ত্রণ সরকারের উদ্দেশ্য নয় : আইনমন্ত্রী গলায় দড়ি দিলেন মা ছেলে-মেয়েকে বিষ খাইয়ে ঢাকা জেলার ধামরাই এলাকা হতে ৯৮০ গ্রাম হেরোইনসহ ০১ জন মাদক কারবারি’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪ আশুলিয়ায় চোর সন্দেহে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা,গ্রেফতার-২ মুরাদনগর উপজেলার ২নং আকুবপুর ইউনিয়নের উদ্যোগে আওয়ামী লীগের ২ নেতার স্মরণ সভা  বাকেরগঞ্জে মহান শহীদদিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষা শহীদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন লক্ষীপুর জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন সভাপতি জসিম সম্পাদক বিপ্লব অদ্বৈত মল্লবর্মণ সাহিত্য পুরস্কার প্রদানের মাধ্যমে শেষ হলো তিন দিনব্যাপী ২য় অদ্বৈত গ্রন্থমেলা ২০২৪

দুই মাসে রেকর্ড সোয়া ২ লক্ষ কর্মী বিদেশে গেছেন

প্রথম নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : সোমবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১২৮ জন দেখেছে

দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কর্মরত অভিবাসী শ্রমিকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন। বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ১ কোটি ৮০ লক্ষ প্রবাসী শ্রমিক কাজ করছেন। তারা বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে এবং কষ্টার্জিত অর্থ বাড়িতে পাঠায়। বর্তমান সরকারের আমলে গত ১২ বছরে (২০০৯ থেকে ২০২১) প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স দ্বিগুণ হয়েছে। ২০০৯ সালে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের পরিমাণ ছিল ১২.৭৭ বিলিয়ন, যা ২০২১ সালে বেড়ে ২৪.৭৮ বিলিয়ন হয়েছে।

রাজধানীর কাকরাইলে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীন জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো (বিএমইটি) আয়োজিত ‘বৈদেশিক কর্মসংস্থানে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে গণমাধ্যমের দায়িত্বশীল অবদান’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সোমবার (২৭ ডিসেম্বর)। . শহিদুল আলম এনডিসিকে জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, করোনার সময়ে জনশক্তি রপ্তানি অর্থাৎ বিদেশে কর্মী পাঠানোর ক্ষেত্রে সাময়িক সমস্যা দেখা দিলেও এখন বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কর্মী পাঠানোর গতিশীলতা ফিরে এসেছে। নভেম্বর ও ডিসেম্বরে রেকর্ডসংখ্যক কর্মী বিদেশে গেছেন। বেশিরভাগ প্রবাসী (৭৫%) সৌদি আরবে গেছেন। মালয়েশিয়ার বাজার খোলার সাথে সাথে প্রতি মাসে অতিরিক্ত ২০,০০০ কর্মী চলে যাবে। প্রতি বছর দেশ থেকে মাত্র ৫ লক্ষ প্রবাসী কর্মী পাঠানোর লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও দুই থেকে আড়াই গুণ (১২ থেকে ১৩ লক্ষ) কর্মী পাঠানোর সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানান তিনি।

বিএমইটির মহাপরিচালক বলেন, বাংলাদেশ থেকে বেশিরভাগ কর্মী সৌদি আরবে যাচ্ছেন। দূতাবাস প্রতি মাসের প্রথম সপ্তাহে সৌদি দূতাবাসের সাথে একটি বিএমইটি সভা করতে সম্মত হয়েছে যাতে স্টাফিং সমস্যাগুলি পর্যালোচনা করা যায় এবং কীভাবে সেগুলি দ্রুত সমাধান করা যায়।

কর্মশালায় বিএমইটির বিদ্যমান কার্যক্রম তুলে ধরেন অতিরিক্ত মহাপরিচালক (কর্মসংস্থান) মীর খায়রুল আলম। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম সচিব ও অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশিক্ষণ) নাফরিজা শ্যামা।

সংবাদ টি শেয়ার করে সহযোগীতা করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
Design & Developed by REHOST BD